যে রাজ্যে যে দল শক্তিশালী সেখানে সে দল একাই লড়বে

যে রাজ্যে যে রাজনৈতিক দল শক্তিশালী সেখানে তাকে এককভাবে লড়াই করতে দিতে হবে। নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি দলকে দিল্লির ক্ষমতা থেকে সরাতে হলে এটাই বিরোধী সব দলের একমাত্র নীতি হওয়া উচিত।’

বুধবার নয়াদিল্লিতে আপ দলের মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আয়োজনে যন্তর-মন্তরে ধরনায় (অবস্থান কর্মসূচি) এমন প্রস্তাব দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

‘মোদি হটাও দেশ বাঁচাও’ স্লোগানে আয়োজিত কর্মসূচিতে মমতা বলেন, ‘নিজেদের ইগো ছেড়ে বৃহত্তর স্বার্থে মোদিকে হারাতে কংগ্রেস-সিপিএম-বিজেডি-জেডিএস সবাইকে কিছুটা ত্যাগ করতে হবে। যে রাজ্যে যে আঞ্চলিক দল ক্ষমতাশালী তাদের সেখানে বেশি আসন পেতে অন্যদের ছাড়তে হবে, ত্যাগ স্বীকার করতে হবে। আপ যেমন দিল্লিতে ক্ষমতাশালী, তেলুগু দেশম অন্ধ্রপ্রদেশে, উত্তরপ্রদেশে সপ্তাবসপা, কর্ণাটকে জেডিএসএ’র মতো দলকে একক আসনে লড়তে দিতে হবে। পশ্চিমবঙ্গে ৪২টা আসনেই তৃণমূল লড়বে এবং ৪২টিই জিতবে। বিজেপি শূন্য পাবে বাংলায়। দেশের স্বার্থে, মানুষের স্বার্থে, প্রতিহিংসাপরায়ণ দল বিজেপিকে যে কোনো মূল্যে হারাতেই হবে।’ নাম না নিয়ে কংগ্রেসকে ইঙ্গিত করে মমতা বলেন, ‘দিল্লিতে আপকে আসন ছেড়ে জেতারা সুযোগ করে দিতে হবে।’

বিজেপিবিরোধী কর্মসূচিতে তৎপর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মঙ্গলবার দিল্লি পৌঁছেন। বুধবার অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ডাকা যন্তর-মন্তরে ধরনা কর্মসূচিতে যোগ দেন তিনি। এর আগে সংসদের বাইরে গান্ধীমূর্তির পাদদেশে তৃণমূলের ধরনা কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে দলীয় সংসদ সদস্যদের নিয়ে দেশকে রক্ষার শপথবাক্য পাঠ করান মমতা।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*